Logo
Notice :
  • Welcome To Our Website...
News Headline :
কাশীপুরে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হওয়ার প্রত্যাশা লিটন মোল্লার ১৫০ টাকায় পৌঁছেছে সয়াবিন তেলের লিটার, বন্ধ টিসিবির বিক্রয় কেন্দ্র বরিশালে বিশ্ব মাসিক স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে স্যানিটারী প্যাড বিতরন করেছে লাভ ফর ফ্রেন্ডস প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ তরুণ সাংবাদিক আল আমিন গাজীর শুভ জন্মদিন আজ প্রথম আলো’র জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবীতে উজিরপুর প্রেস ক্লাবের মানববন্ধন উজিরপুর এতিম ছাত্রদের নিয়ে বরিশাল বিভাগীয় অনলাইন সংবাদ পত্র সম্পাদক-প্রকাশক পরিষদের ইফতার মাহফিল বরিশালের নিউ আইকন ফার্নিচারে ঈদ উপলক্ষে চলছে বিশেষ ছাড়। বরিশাল অনলাইন প্রেসক্লাব’র অনুমোদন দিলো বাংলাদেশ অনলাইন প্রেসক্লাব বরিশাল বিভাগীয় অনলাইন প্রকাশক ও সম্পাদক পরিষদ কমিটি গঠন
পৌর নির্বাচন: মেহেন্দিগঞ্জে বহিরাগতদের আনাগোনা, ঝুঁকিতে কেন্দ্রগুলো!

পৌর নির্বাচন: মেহেন্দিগঞ্জে বহিরাগতদের আনাগোনা, ঝুঁকিতে কেন্দ্রগুলো!

বার্তা পরিবেশক, মেহেন্দিগঞ্জ // আসন্ন মেহেন্দিগঞ্জ পৌরনির্বাচনের শেষ মূহুর্তে ঝুঁকিতে রয়েছে কেন্দ্রগুলো। অভিযোগ রয়েছে, ০৯টি কেন্দ্রের মধ্যে সবগুলো ঝুকিতে। নির্ভরযোগ্য সুত্র মতে, মেহেন্দিগঞ্জের ৯ নং ওয়ার্ডজুড়ে বহিরাগতদের উৎপাতে পুরো ভীতির সৃস্টি হয়েছে এলাকাজুড়ে ।৩০ জানুয়ারী পৌরসভা নির্বাচনে বহিরাগত এসকল সন্ত্রাসীদের রুখতে না পারলে নির্বাচনী ময়দান রক্তক্ষয়ী ও বানচালের আশংকায় কাবু হয়ে পড়ছে ভোটার সহ সাধারন প্রার্থীরা।অভিযোগে জানা যায়, অসাধুচক্রের ছত্রছায়ায় ৯ নং ওয়ার্ড এর বেশ কিছু স্থানে চরগোপালপূর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সামছুল বাড়ি মনির, আলিমাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কথিত স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি শেখ শহীদ, জাঙ্গালা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাদের বয়াতি, শ্রীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হারুন শতাধিত বহিরাগতদের নিয়ে নির্বাচনে ভীতি ও তান্ডবের উদ্দ্যেশ্যে বিভিন্ন স্থানে অবস্থান করতেছে। অভিলম্বে এদের লাগাম টেনে না ধরতে পারলে নির্বাচনে ক্ষতিসাধনের মারাত্মক আশংকা রয়েছে। এদিকে ২ নং ওয়ার্ডের মাঝিকান্দার সোহেল মোল্লা তিনি সালাম দেওয়ান দরিচর খাজুরিয়া আ’লীগ সভাপতি, আজাদ ভান্ডারের সামনে বাড়া বাসায় শতাধিক বহিরাগতদের নিয়ে অবস্থান করছে বলে জানা যায়। উল্লেখ্য, ৩০শে জানুয়ারী মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার পৌর নির্বাচন। আওয়ামীলীগ, বিএনপি ও ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন মেয়র পদে তিনজন লড়লেও তাদের মধ্যে নেই দলের কোন বিদ্রোহী প্রার্থী। আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকে আলহাজ্ব কামাল উদ্দীন খান মনে করেন সুষ্ঠ নির্বাচনে বিজয় নিশ্চিত। অপরদিকে বিএনপি’ র প্রার্থী জিয়া উদ্দিন সুজন ধানের শীষ প্রতীকে লড়াই করলেও মনে করেন সুষ্ঠ নির্বাচন হলে তিনি বিজয় হবেন। তবে সুষ্ঠ নির্বাচন নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন, নির্বাচনকি হবে! যদিও নির্বাচনি মাঠে তাদের প্রচার প্রচারনা নেই বললেই চলে। সব দলের ব্যানার পোস্টারে এলাকা সয়লাভ করলেও চোখে পরেনা তাদের ধানের শীষের কোন পোস্টার। মাঝে মধ্যে ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার জাহাঙ্গির হোসেন’র হাতপাখার পোস্টার চোখে পরলেও নির্বাচনি মাঠে দেখা যায়না তাকে। ০৯টি ওয়ার্ডে ক্ষমতাশীল দলের একাধিক কাউন্সিলর প্রার্থী নির্বাচন করাতে ঝুঁকিতে রয়েছে সবগুলো কেন্দ্র। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আফসার নামের আওয়ামীলীগের এক নেতা খুন হলেও থেমে নেই ক্ষমতাশীল দলের নিরব অন্ত-কোন্দল। যে কোন সময় নির্বাচনের শেষ মুহুর্তে ঘটতে পারে বড় কোন দূর্ঘটনা।এ বিষয়ে শান্তিপ্রিয় ভোটাররা প্রশাসনের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *