Logo
Notice :
  • Welcome To Our Website...
News Headline :
গায়েবি মামলায় হয়রানির শিকার মেহেন্দিগঞ্জের এক পরিবার মেহেন্দিগঞ্জে কারামুক্ত আ’লীগ নেতা জামাল মোল্লাকে এলাকায় গণসংবর্ধনা কাশীপুরে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হওয়ার প্রত্যাশা লিটন মোল্লার ১৫০ টাকায় পৌঁছেছে সয়াবিন তেলের লিটার, বন্ধ টিসিবির বিক্রয় কেন্দ্র বরিশালে বিশ্ব মাসিক স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে স্যানিটারী প্যাড বিতরন করেছে লাভ ফর ফ্রেন্ডস প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ তরুণ সাংবাদিক আল আমিন গাজীর শুভ জন্মদিন আজ প্রথম আলো’র জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবীতে উজিরপুর প্রেস ক্লাবের মানববন্ধন উজিরপুর এতিম ছাত্রদের নিয়ে বরিশাল বিভাগীয় অনলাইন সংবাদ পত্র সম্পাদক-প্রকাশক পরিষদের ইফতার মাহফিল বরিশালের নিউ আইকন ফার্নিচারে ঈদ উপলক্ষে চলছে বিশেষ ছাড়।
নরসিংদীর সীসা কান্ডে গ্রেফতার রায়হান: মূল হোতারা ধরা ছোঁয়ার বাইরে

নরসিংদীর সীসা কান্ডে গ্রেফতার রায়হান: মূল হোতারা ধরা ছোঁয়ার বাইরে

 

বিশেষ প্রতিনিধি ঃ   নরসিংদীর আলোকিত সীসা ছিনতাই কাণ্ডে গত ২৭ জুলাই গ্রেপ্তার হয়েছে নরসিংদী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রিমন ও কলেজ শাখা ছাত্রলীগের কমিটির সভাপতি একমির ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও রাজনীতিক কর্মী রায়হান মিয়া।

রায়হানের বাড়ি নরসিংদী শহরের বৌয়াকুর এলাকায়। রায়হান বিরুদ্ধে সীসা ডাকাতি মামলা ছাড়াও আরও নানা অপরাধে সংযুক্ত থাকার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মাদক ব্যবসা এমনকি অবৈধভাবে মোটরসাইকেল বর্ডার ক্রস করে চোরাই পথে আনা মোটরসাইকেল এর ব্যবসাও করেন রায়হান।

রায়হান যাদের মদদে বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজে জড়িত রায়হান গ্রেফতার হলেও তারা এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে। একমিকে এরই মধ্যে একবার পুলিশ ধরলেও কিছুক্ষণ সিএনজিতে বসিয়ে রেখে ছেড়ে দেয়। ভিডিও ফুটেজে প্রমাণিত হওয়া স্বত্ত্বেও সীসাকান্ডে জড়িত মূল হোতারা এখনো শহরে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। বিভিন্ন রাজনৈতিক প্রোগ্রামে তাদের সরব উপস্থিতি জানান দিচ্ছে।

তথ্য প্রমাণ থাকার পরেও প্রকৃত অপরাধীরা এখনও গ্রেফতার হচ্ছে না বিস্ময় প্রকাশ করেছে জেলা ছাত্রলীগের একাধিক নেতা-কর্মী। নাম প্রকাশ না করে এক জেলা ছাত্রলীগ নেতা জানায়, “আমাদের নেত্রী আপোষহীন, কিন্তু নরসিংদীর একজন আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতা আছে যিনি সম্পূর্ণ বিপরীতে। অপরাধীদের প্রশ্রয় দিচ্ছেন। পাপীয়ার ঘণিষ্ঠ সহচরদের এখনো অপরাধ সংঘটিত করতে সর্বদা রাজনীতিক শেল্টার দিয়ে যাচ্ছেন তিনি।”

একজন যুবলীগ নেতা বলেন “যেখানে সংসদে দাঁড়িয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ছাত্রলীগকে নিয়ে প্রশংসা করেন, সেখানে নরসিংদী জেলা ছাত্রলীগের বিভিন্ন অপকর্মের জন্য বারবার চিহ্নিত হলেও দলীয় শীর্ষ নেতা ও প্রশাসন তার বা তাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। সাধারণ মানুষের কাছে একটি বার্তা যাচ্ছে, যা অপ্রিয় হলেও সত্যি, ছাত্রলীগের বড় পদে থাকলে যত বড় অপরাধ করলেও নরসিংদীতে ছাড় পাওয়া যায়। এটা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের ছাত্রলীগের জন্য প্রচন্ড ক্ষতিকারক হয়ে দাঁড়াবে। তাই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু নিজ হাতে গড়া বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, তথা নরসিংদী জেলা ছাত্রলীগের অতীতের ঐতিহ্য, গৌরব ফিরিয়ে আনতে, সীসা কাণ্ডে জড়িত প্রকৃত অপরাধীদের গ্রেপ্তার করে, পদ থেকে অব্যাহতি দিয়ে, নরসিংদী জেলা ছাত্রলীগ কে কলঙ্কমুক্ত করা এখন সময়ের দাবি হয়ে দাঁড়িয়েছে।”

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *